১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার,রাত ৪:৫১

খুলনায় তারুণ্যের সমাবেশ সফল করতে কর্মী সভা

প্রকাশিত: জুলাই ১০, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

খুলনা প্রতিবেদক. বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান  তারেক রহমানের নিদের্শনায় বর্তমান গণবিরোধী সরকারের পতনের লক্ষে দেশব্যাপি তারুণ্যের সমাবেশের অংশ হিসেবে খুলনায় আগামী ১৭ জুলাই বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। বিভাগীয় তারুণ্যের সমাবেশ সফল করার লক্ষে খুলনা বিএনপির কর্মিসভা সোমবার (১০ জুলাই) সকালে নগরীর হাজী মুহসিন রোডস্থ সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মনি’র কার্যালয়ে খুলনা মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি, খুলনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় গণতান্ত্রিক আন্দোলনের রাজপথের সাহসী ত্যাগী বিএনপি ও অঙ্গ দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় খুলনায় অনুষ্ঠিত তারুণ্যের সমাবেশের সফলতা কামনা করে দলের প্রতিষ্ঠাকালীন ও রাজপথের ত্যাগী পরীক্ষতি নেতাকর্মিদের যোগদানের আহবান জাননো হয়। সভায় খুলনার তরুণ সমাজকে জণগনের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষে তত্ত¡বধায়ক সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করার দাবিতে চলমান আন্দোলনকে বেগবান করার জন্য তারুণ্যের সমাবেশ সফল করার আহবান জাননো হয়। সভা থকে তারুণ্যের সমাবেশে অংশ গ্রহণের জন্য ১৭ জুলাই সকাল ১০টায় শিববাড়ি মোড়স্থ জিয়া হলের সামনে জমায়েত হওয়ার আহবান জাননো হয়। সভায় সরকার পতন আন্দোলনের আগামী দিনের সকল কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় খুলনার দলের চলমান দুর্বলতা, ব্যর্থতা, বিভক্তি ও সংবিধান বহির্ভুত গোজামিলের গঠণ প্রক্রিয়া সর্বনাশা কার্যক্রম বন্ধ করে রাজপথের ত্যাগী নেতা-কর্মিদের সমন্বয়ে ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী বিএনপি গঠণে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতি আহবান জাননো হয়। সভায় তারুণ্যের সমাবেশে সফল করার জন্য ওয়ার্ড ও থানা পর্যায়ে কর্মিসভা, প্রচার মিছিল, লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।
সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মনি, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশাররফ হোসেন, জাফরউল¬াহ খান সাচ্চু, জলিল খান কালাম, এড. ফজলে হালিম লিটন, শেখ ইকবাল হোসেন, কমান্ডার আবু জাফর, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, সিরাজুল হক নান্নু, নজরুল ইসলাম বাবু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, মেহেদী হাসান দিপু, মহিবুজ্জামান কচি, ইকবাল হোসেন খোকন, এড. গোলাম মওলা, ইস্তিয়াক উদ্দিন লাভলু, নিজাম উর রহমান লালু, আনোয়ার হোসেন, জালু মিয়া, সাদিকুর রহমান সবুজ, ইউসুফ হারুন মজনু, ইশহাক তালুকদার, তরিকুল্লাহ খান, আবুল কালাম শিকদার, কাজী শফিকুল ইসলাম শফি, নিয়াজ আহমেদ তুহিন, আকরাম হোসেন খোকন, শামসুজ্জামান চঞ্চল, এইচ এম আবু সালেক, মাহবুবুল হক, মেজবাহ উদ্দিন মিজু, রবিউল ইসলাম রবি, মহিউদ্দিন টারজান, অঅব্দুল জব্বার, রবিউল ইসলাম বিপ্লব, মেহেদী হাসান সোহাগ, জাহিদ কামাল টিটু, রিয়াজুর রহমান, বাচ্চু মীর, মাহবুব হোসেন, মনিরুজ্জামান মনির, আব্দুল মতিন, জাকারিয়া লিটন, কামাল উদ্দিন, লিটু পাটোয়ারী, খান শহিদুল ইসলাম, আলমগীর হোসেন আলম, তহিদুল ইসলাম খোকন, মনিরুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী, সাইমুন ইসলাম রাজ্জাক, আব্দুল গফ্ফার, শাহনাজ পারভীন, হেদায়েত হোসেন হেদু, মনিরুজ্জামান খোকন, হুমায়ুন কবির, আব্দুল জলিল হাওলাদার, আলমগীর ব্যাপারী, হাবিবুর রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান বাবলু, মাসুদ খান বাদল, ইকবাল হোসেন, শামীম আশরাফ, নুরুল ইসলাম লিটন, বারেক হাওলাদার, সেলিম বড় মিয়া, ওলিয়ার রহমান অলি, মো. আলী মিঠু, সেলিম কাজী, মাহবুর রহমান লিটু, শামীম খান, শাকিল আহমেদ, আল আমিন তালুকদার প্রিন্স, গোলাম নবী ডালু, সাখাওয়াত হোসেন, সুলতান মাহমুদ সুমন, খান রাজিব, শরিফুল ইসলাম সাগর, আরিফুজ্জামান আরিফ, হাবিব খান, এড.ওমর ফারুক বনি, গৌতম দে হারু, সমির সাহা, রাজিবুল ইসলাম বাপ্পি, শাহাবুদ্দিন আহমেদ, সৈয়দ গাজী, মাহমুদুর রহমান মুন্না, হুমায়ুন কবির, ফিরোজ আহমেদ, মাসুদ রেজা, মাসুদ রুমী, আবুল বাসার মোল্লা সোলাইমান, মুজিবর রহমান, মোল্লা মেহেদী হাসান, ওহাব শরীফ, আমিনুল ইসলাম বুলবুল, শহিদুল ইসলাম লিটন, তহিদুল ইসলাম, আলম হাওলাদার, ইলিয়াজ হোসেন, পারভেজ মোড়ল, মারুফ রহমান, এ আর রহমান সৈয়দ হুমায়ুন কবির, আমিরুল ইসলাম, মিজানুর রহমান মিজান, এস এম আলমগীর হোসেন, কবির বিশ্বাস, কামরুল ইসলাম খোকন, ঈশা শেখ, সালাউদিবদন সান্নু, শামীম রেজা, শেখ আবুল কালাম, মহিউদ্দিন বাবু, জাফর হাওলাদার, শাহিন শিকদার, লাভলু শেখ, মনজুর ইনলাম টিটু, আসাদুর রহমান সানা, আশিকুর রহমান, তছির উদ্দিন, ইউনুচ শেখ, জিএম হুমায়ুন আজিজ, জুয়েল রানা, কামরুজ্জামান সিরাজ, মো. এনামুল, মুজিবর রহমান, হারুন আর রশিদ প্রমুখ।

  • শেয়ার করুন