১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার,দুপুর ১২:২৭

ফকিরহাটে দু্’ডজন মামলার আসামী ‘দস্যু ইমরান’ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: জুলাই ২০, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

ফকিরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার লখপুর এলাকার চব্বিশ মামলার আসামী মো. ইমরান শেখ (৩৫) কে গ্রেপ্তার করেছে ফকিরহাট মডেল থানা পুলিশ। বুধবার (১৯ জুলাই) সকালে কঠোর পুলিশ প্রহরায় তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আলীমুজ্জামান জানান, দুর্ধর্ষ দস্যু ইমরান শেখের নামে বিভিন্ন থানায় চুরি, ডাকাতিসহ ২৪টি মামলা রয়েছে। সর্বশেষ উপজেলার পিলজঙ্গ ইউনিয়নে এক ঠিকাদারের বাড়িতে দস্যুতার সন্দিগ্ধ আসামী হিসেবে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার সময়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ইমরান উপজেলার ছোট খাজুরা গ্রামের মৃত হযরত আলী শেখের ছেলে। পুুলিশ জানায়, গত সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৪টার সময়ে উপজেলার পিলজঙ্গ ইউনিয়নের ঠিকাদার শহিদুল ইসলামের বাড়ি দস্যুতা হয়। এসময় দুর্বৃত্তরা নগদ টাকা, স্বণালংকার ও মোবাইল ফোন সহ প্রায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) রাতে ঠিকাদার শহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে ৪জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে ফকিরহাট মডেল থানায় একটি দস্যুতার মামলা করেন। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহভাজন হিসেবে শহিদুল ইসলামকে আটক করে পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফকিরহাট মডেল থানার ওসি (তদন্ত) স্বপন কুমার রায় জানান, মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) ভোর রাতের দিকে মুখোশধারী একটি দুর্বৃত্তের দল দোতলায় উঠে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরের প্রবেশ করে। এরপর পরিবারের সকলকে মারপিট করে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ঘর থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন ও অন্যান্য জিনিসপত্রসহ ১ লাখ ৩০ হাজার ৬০০ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। তদন্তের কাজ চলমান রয়েছে। ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আলীমুজ্জামান বলেন, সন্দেহভাজন হওয়ায় গ্রেপ্তারকৃত ২৮ মামলার আসামী ইমরান শেখকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অধিকতর তদন্তের জন্য তাকে রিমান্ড চাওয়া হবে। ঘটনার সাথে জড়িতদের আটকের অভিযান চলছে। 

  • শেয়ার করুন