১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার,দুপুর ১২:৫৪

বাংলানিউজের সাংবাদিক নাদিম হত্যা্, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের নিন্দা ও প্রতিবাদ

প্রকাশিত: জুন ১৬, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সংবাদ প্রকাশের জেরে সন্ত্রাসী হামলায় বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমের জামালপুর ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  ৭১ টিভির বকশীগঞ্জ প্রতিনিধি গোলাম রাব্বানী নাদিম নিহত হওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাগেরহাট টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন। বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) রাতে সংগঠনটির পক্ষ থেকে এই বিবৃতি দেওয়া হয়।

বিবৃতি দাতারা হলেন, বাগেরহাট টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বিষ্ণু প্রসাদ চক্রবর্তী, সহ-সভাপতি ইসরাত জাহান, সাধারণ সম্পাদক ইয়ামিন আলী, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মাসুদুল হক, অর্থ সম্পাদক এসএম সামছুর রহমান, দপ্তর ও ক্রীড়া সম্পাদক অলীপ ঘটক, আইসিটি ও প্রচার সম্পাদক তরফদার রবিউল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য নীহার রঞ্জন সাহা, শওকত আলী বাবু, শেখ আহসানুল করিম, মোঃ আলী আকবর টুটুল, মোঃ কামরুজ্জামান, খন্দকার আকমল উদ্দিন সাখি, সাধারণ সদস্য অধ্যাপক মাহফিজুর রহমান, মোঃ আরিফুল ইসলাম, এসএম আমিরুল হক, মামুন আহমেদ, আব্দুল্লাহ আল ইমরান, নন্দ কিশোর চক্রবর্তী, মোঃ জামাল হোসেন বাপ্পা, এইচ এম মইনুল ইসলাম।

বিবৃতিতে তারা বলেন, সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমকে যারা হত্যা করেছে অতিদ্রুত তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানান সাংবাদিক নেতারা।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) বেলা পৌনে ৩টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমের মৃত্যু হয়। এর আগে বুধবার অফিসের কাজ শেষে রাত ১০টার দিকে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফেরার পথে বকশীগঞ্জ পাথাটিয়ায় পৌঁছালে সামনে থেকে অতর্কিত আঘাত করে চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে তাকে ফেলে দেওয়া হয়। এরপর দেশীয় অস্ত্রধারী ১০-১২ জন দুর্বৃত্ত তাকে সড়ক থেকে মারধর করতে করতে টেনেহিঁচড়ে অন্ধকার গলিতে নিয়ে যায় এবং তার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি আঘাত করে।  সেসময় সহকর্মী মুজাহিদ তাদের আটকাতে গেলে তাকেও মারধর করে দুর্বৃত্তরা। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় সহকর্মী মুজাহিদ ও স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু আঘাত গুরুতর হওয়ায় সেখানকার চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।

  • শেয়ার করুন