১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার,রাত ৯:০৪

ভোটার স্লিপের সাথে পান-বিড়ি ফ্রি

প্রকাশিত: মে ৮, ২০২৪

  • শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার জোবাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে প্রার্থীদের পক্ষ থেকে করা অস্থায়ী বুথে দেওয়া হয়েছে ভোটার স্লিপ। তবে শুধু স্লিপ নয় একই সাথে ভোটারদের দেওয়া হয়েছে পান-সিগারেট।

সরেজমিনে এদিন দুপুরে জোবাই কেন্দ্রে প্রবেশ পথে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর এমন ৭টি বুথ ছিলো। প্রতিটি বুথেই ভোটারদের ভোটার নম্বর খুঁজে দেওয়া হচ্ছিলো। সাথে টেবিলে সাজানো পান-সুপারি, জর্দা ও চুন। দুটি বুথে পানের সাথে বিড়ি-সিগারেটও দেখা যায়। ভোটার স্লিপের সাথে বুথগুলোতে পান-বিড়ি দেওয়াতে সেখানে ভিড়ও ছিলো বেশ কিছুটা। বুথে থাকা প্রার্থী সামর্থকরা জানালেন, কেবল ভোট দিতে যাওয়ার সময় নাই।

ভোট দিয়ে ফেরার পথেও সবাই পান খাচ্ছেন। পান চিবুতে চিবুতে ভোট দিয়ে বেরিয়ে পঞ্চাশোর্ধ আবুল কালাম বলেন, পান খাওয়া আমাগে অভ্যাস। ভোটও দিছি, পানও খাইছি। দুপুর তিনটার দিকে ভোটার নম্বর খুঁজতে দাঁড়ান রহিমা বেগম। তবে আগেই তাকে হাতে নিতে দেখা গেল পান-সুপারি। তা মুখে গুজে তারপর নাম ঠিকানা দিয়ে ভোটার নম্বর খুঁজে নেন রহিমা। জানতে চাইলে বললেন, ভোট তো আমাদের গ্রামে একটা উৎসবের মত। দেহেন না কেমন যেন মেলা মিলছে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, কচুয়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। তবে ভোটের আগে দিন বিকালে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক কে এম ফরিদ হাসান (আনারস) নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়ে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মীর জায়েসী আশরাফি জেমসকে (মোটরসাইকেল) সমর্থন দেন। এখানে অপর দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমা সরোয়ার (ঘোড়া) ও রাড়ীপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক মেহেদী হাসান বাবু (দোয়াত কলম)।

  • শেয়ার করুন