১লা অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার,রাত ১২:২৫

মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ঘের দখলসহ নানা অভিযোগ

প্রকাশিত: জুন ১৭, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগেরহাট

বাগেরহাটের মোংলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু তাহের হাওলাদারের বিরুদ্ধে ঘের দখল,আধিপত্য বিস্তার, স্থানীয়দের হয়রানিসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১৭ জুন) বাগেরহাট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মাওঃ আঃ কাদের।
এসময়, সোনাইলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমজাদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী আকবর শেখ, মোংলা উপজেলা মৎস্যজীবি লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক বাবুসহ ক্ষতিগ্রস্থরা উপস্থিত ছিলেন।
লিখিত বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মাওঃ আঃ কাদের বলেন, ২০২১ সালে সোনাইলতলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পদে বিএনপি নেতা মাহবুবুবর রহমানের পক্ষে অবস্থান নেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার। কিন্তু আমরা আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা আমজাদ হোসেনের নাম প্রস্তাব করলে উপজেলা চেয়ারম্যান আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হন। এরপর থেকেই চেয়ারম্যান ও তার লোকজন আমার উপর হামলা করে। আমার চিংড়ি ঘের থেকে কোটি টাকার মাছ লুট করে নিয়ে যায়। আমাকে মেরে ফেলার হুমকী দেয়। যার কারণে আমি এক বছর ধরে এক ধরনের পলাতক জীবন-যাপন করছি। এ বিষয়ে উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগকে জানিয়েও কোন প্রতিকার পাইনি।
তিনি আরও বলেন, শুধু আমাকে নয়, এলাকার অনেক নিরীহ জনগনকে চেয়ারম্যান ও তার লোকজন নানা ভাবে অত্যাচার করে আসছে। আওয়ামী লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে চেয়ারম্যান ঘের দখলসহ নানা অপরাধ করে আসছেন। অতিদ্রুত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন এই আওয়ামী লীগ নেতা।
এসব অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার বলেন, মাও. আঃ কাদেরের সাথে মূলত নিজের বংশের লোকদের বিরোধ রয়েছে। অহেতুক আমাকে জড়িয়ে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছেন মাও. আঃ কাদের। আমি কারও ঘের দখল করিনি।

  • শেয়ার করুন