১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার,রাত ৩:৩৪

মোংলা বন্দরে প্রথমবার ভিড়লো সাড়ে ৮ মিটার গভীরতার জাহাজ

প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের মোংলা সমুদ্র বন্দরে প্রথমবারের মত সাড়ে ৮ মিটার  গভীরতার কন্টেইনারবাহী জাহাজ নোঙ্গর করেছে।বৃহস্পতিবার (০৩ আগস্ট) দুপুরে সিঙ্গাপুরের পতাকাবাহী এমভি মায়েরক্স নুসানতারা নামক জাহাজটি বন্দরের ৯ নম্বর জেটিতে নোঙ্গর করেছে। জাহাজটিতে ৪৮৯ টিইউজ ( ৭ হাজার ৩৫৭ মেট্রিকটন) পন্য রয়েছে। এই পন্য খালাস শেষে জাহাজটিতে ২৬৩ বক্স ৩৬৭ টিইউজ বোঝাই হবে বলে জানিয়েছেন বন্দরের হারবার ও মেরিন বিভাগ।

এর আগে রবিবার (২৫ জুন) বিকেলে প্রথমবারের মত  “৭৫০ টিইউজ কন্টেইনার” নিয়ে মোংলা বন্দরে ভিড়েছিল ০৮ মিটার ড্রাফটের গিয়ারলেস জাহাজ “এমভি ফিলোটিমো”। নিয়মিত পশুর চ্যানেল ও জেটি ফ্রন্টে ড্রেজিংয়ের ফলে ৮ মিটার ও সাড়ে ৮ মিটার গভীরতার জাহাজ ভেড়ানো সম্ভব হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বন্দর কর্তৃপক্ষ।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (হারবার ও মেরিন) ক্যাপ্টেন মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন,
“MV.MAERSK NUSANTARA” নামক সিঙ্গাপুরের পতাকাবাহী ৮ দশমিক ৫ মিটার  গভীরতার জাহাজটি মোংলা বন্দরের ৯ নং জেটিতে নোঙ্গর করেছে। জাহাজ থেকে ৩১৫ বক্স ৪৮৯ টিইউজ পন্য এই বন্দরে খালাস হবে। খালাস শেষে ২৬৩ বক্সে ৩৬৭ টিইউজ পন্য বোঝাই হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধন হওয়ায় পর থেকে মোংলা বন্দরের কার্যক্রম ব্যপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এবন্দর দিয়ে রেডিমেইড গার্মেন্টস পন্যসহ বিভিন্ন পন্য রপ্তানি শুরু হয়েছে। মোংলা বন্দরে দ্রুত জাহাজ হ্যান্ডলিং করা, পর্যাপ্ত ইয়ার্ড ও শেড সুবিধা, জেটি অভ্যন্তরে কন্টেইনার স্টাফিং সুবিধা, কাট অফ টাইম (Cut Of Time) এর নিয়ম অনুসরণ না করা, পর্যাপ্ত ইকুইপমেন্ট সুবিধা ও পন্যের নিরাপত্তা বৃদ্ধিসহ নানা সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে। সেই সাথে ঢাকার সাথে দূরত্ব কমে যাওয়ায় সময় ও অর্থ দুটোই সাশ্রয়ী হওয়ায় ব্যবসায়ীরা মোংলা বন্দর ব্যবহারে আরও বেশি আগ্রহী হচ্ছে।

 

  • শেয়ার করুন