১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার,দুপুর ১:১৩

রামপালে স্টেম ফেস্টিভাল, ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের দক্ষতায় মুগ্ধ

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২৪

  • শেয়ার করুন

বাগেরহাট : বাগেরহাটের রামপালে প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক স্টেম ফেস্টিভাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার পেরিখালি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে দিনব্যাপি এই উৎসবে ছিল প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট, বিজ্ঞান ভিত্তিক প্রকল্প প্রদর্শণী, উদ্ভাবনী আইডিয়া নিয়ে পোস্টার উপস্থাপনা, রোবটিক্স প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন আয়োজন।

বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকার মেয়ে শিক্ষার্থীদের তথ্য প্রযুক্তিভিত্তিক দক্ষতা অর্জনে আগ্রহী করে তোলার লক্ষ্যে বাস্তবায়িত STEM & ICT Skills for Girls of Coastal Areas [SISGCA] শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের-এর উদ্যোগে আয়োজিত এই স্টেম ফেস্টের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বাগেরহাটের ৭টি স্কুলের দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন। স্কুলগুলো হল- পেড়িখালি মডেল হাইস্কুল, বড়কাটালি বহুমুখী হাইস্কুল, ঝনঝনিয়া সেকেন্ডারি হাইস্কুল, শ্রীফলতলা পাইলট হাইস্কুল, রামপাল পাইলট গার্লস হাইস্কুল, ডাকরা বহুমুখি মডেল হাই স্কুল ও উদ্দীপন বদর সামসু বিদ্যানিকেতন।

ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের ৩১টি বিজ্ঞান প্রকল্প, ১০টি পোস্টার প্রেজেন্টেশন এবং দিনব্যাপী প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট, কুইজ প্রতিযোগিতা, রোবটিক্স প্রতিযোগিতা পরিদর্শণ করেন উৎসবে আগত বিভিন্ন পর্যায়ের অতিথিগণ। শিক্ষার্থীদের উপস্থাপিত সাসটেইনএবল সিটি, ড্রোন, ফ্লাড এলার্ম সিস্টেম, ভূমিকম্প নির্ণায়ক, ফায়ার ডিটেক্টরসহ বেশ কিছু প্রকল্প নিয়ে শিক্ষার্থীরা বৈজ্ঞানিক প্রকল্প বা মডেলগুলো সম্পর্কে প্রশংসা করেন অতিথিগণ।

এদিন বিকেলে সমাপনী আয়োজনে গণিত অলিম্পিয়াডের সভাপতি ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রামপাল উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রহিমা সুলতানা বুশরা, মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ তারেক সুলতান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অফ ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. বি এম মইনুল হোসেন, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ হেলাল আন নাহিয়ান, বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী। এছাড়া অংশগ্রহনকারী বিদ্যালয় গুলোর প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষকবৃন্দ, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যবৃন্দ ও অন্যান্য শিক্ষকমন্ডলী উপস্থিত ছিলেন। তাঁরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ঘুরে শিক্ষার্থীদের প্রাণোচ্ছল অংশগ্রহণ উপভোগ করেন।

মালালা ফান্ডের অর্থায়নে বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের বাস্তবায়নে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাস্তবিক সমস্যা সমাধানে প্রযুক্তি ও বিজ্ঞানকে কাজে লাগানোর মনোভাব সৃষ্টি ও প্রযুক্তি কর্মক্ষেত্রের জন্য দক্ষ হয়ে গড়ে তোলার লক্ষ্যে গত বছর থেকে রামপাল উপজেলার পেড়িখালি মডেল হাইস্কুল ও বড়কাটালি বহুমুখী হাইস্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে আসছে প্রকল্পটি। এর আগে প্রকল্পটির মাধ্যমে স্কুল দুটিতে বাংলাদেশ জুনিয়স সাইন্স অলিম্পিয়াডের আওতায় স্কুল ভিত্তিক সাইন্স অলিম্পিয়াড এবং বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের আওতায় স্কুল ভিত্তিক গণিত অলিম্পিয়াড আয়োজিত হয়।

রামপাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রহিমা সুলতানা বুশরা বলেন, রামপালের মত প্রত্যন্ত এলাকার মেয়েদের জ্ঞানচর্চায় উদ্বুদ্ধ করা এবং তাঁদের উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে বিকশিত করার এমন সুযোগ শিক্ষার্থীদের আরো প্রযুক্তি ও বিজ্ঞানমনষ্ক করে তুলবে বলে আমার বিশ্বাস।

মোরেলগঞ্জ উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস. এম. তারেক সুলতান বলেন, শিক্ষার্থীদের প্রাণবন্ত অংশগ্রহণ আমাকে আনন্দিত করেছে এই ভেবে যে স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরী তে আমাদের উপকূলের মেয়েরাও সমানভাবে অংশ নিতে প্রস্তুত হচ্ছে।

  • শেয়ার করুন