১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার,সন্ধ্যা ৭:৪৬

শরনখোলায় বেকারী কারখানায় ২ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় আল-আমিন নামে একটি বেকারীর কারখানায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে কেক, বিস্কুট সহ নানা বেকারি খাদ্য দ্রব্য উৎপাদন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে (১৪ জুন) সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রুহুল কুদ্দুস ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ অনুযায়ী কারখানা মালিক মো. মিজানুর রহমানকে এই জরিমানার আদেশ দেন।
দেশব্যাপী নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করার জন্য অভিযান পরিচালনা করেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও  শরনখোলা উপজেলা প্রশাসন ।
অভিযান চলাকালে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল ইমরান, উপজেলা নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক সুকুমার চন্দ্র সিকদার, জেলা কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি ও সাংবাদিক বাবুল সরদার, সাংবাদিক আ.মালেক রেজা , রায়েন্দা বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান বাবুল তালুকদারসহ প্রমুখ  উপস্থিত ছিলেন।


জেলা নিরাপদ খাদ্য কর্মকর্তা সৌরভ চন্দ্র বর্মন বলেন,পঁচা ডিম, কাপড়ের রঙ লেবেলবিহীন আর নোংরা পরিবেশে তৈরী করে খাদ্যপণ্য বাজারজাত হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে শরনখোলার রায়েন্দা বাজারে আল আমিন বেকারী কারখানায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় সত্যতা পাওয়ায় তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয় এবং সর্তক করা হয়।তিনি আরও বলেন,বেকারী কর্তৃপক্ষকে নিরাপদ খাদ্য আইন মেনে উৎপাদন,  প্রক্রিয়াকরণ, সংরক্ষণ, ভোক্তাদের স্বাস্থ্যঝুকি এড়াতে নিয়ম মেনে সংযোজন দ্রব্য যেমন ফুড গ্রেড রঙ, বিশুদ্ধ ও স্বাস্থ্যসম্মত কাচামালের উপকরণ ব্যবহার ও খাদ্যপণ্যের লেবেলে সুস্পষ্ট তথ্য সংবলিত খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ করার দিক-নির্দেশনা দেওয়া হয়।

  • শেয়ার করুন