১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার,দুপুর ১২:৩২

সড়ক অবরোধ করে বাগেরহাটে ম্যাটস শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত: আগস্ট ৩০, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটে চার দফা দাবিতে সড়ক অবরোধ করে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন মেডিকেল এ্যাসিস্ট্যান্ট স্কুল (ম্যাটস) শিক্ষার্থীরা। বুধবার (৩০ আগস্ট) বেলা ১১ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সামনে সড়ক বন্ধ করে এই কর্মসূচি পালন করেন। কর্মসূচিতে বাগেরহাট ২৫০ শয্যা জেলা হাসপাতালে কর্মরত ডিপ্লোমা ইন্টার্ণ চিকিৎসকরাও অংশগ্রহন করেন। শিক্ষার্থীরা “বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভৈষম্যের ঠাই নাই” “রক্ত লাগলে রক্ত নিন-তবু দাবি মেনে নিন” চাকুরী নেই, চাকুরী দিন, উচ্চশিক্ষার সুযোগ দিন-সহ নানা স্লোগান দেন। মুখে কসটেপ ও হাতে শিকল-তালা লাগিয়ে আন্দোলনে অংশনেন ম্যাটস তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের ম্যাটস শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্য সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। কিন্তু ম্যাটস শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নষ্ট করতে একটু কুচক্রী মহল এই ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। আমাদেরকে কোন কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না। ম্যাটসকে রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন এই শিক্ষার্থী।

ম্যাটস শিক্ষার্থী জিয়াউল ইসলাম বলেন, আমরা প্রথমে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছি। পরে একযোগে সারাদেশের ম্যাটসের প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়েছি। বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত ইন্টার্ণ চিকিৎসক ভাইরাও কর্মবিরতি করে আমাদের সাথে যোগ দিয়েছেন। তারপরও সরকারের টনক নড়ছে। আমাদের দাবি মেনে না নেওয়া হলে ভবিষ্যতে আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। দাবি না মানা পর্যন্ত কোন ক্লাস ও পরীক্ষায় অংশগ্রহন করা হবে না বলেও জানান তিনি।

এদিকে দীর্ঘক্ষন সড়ক বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছেন পথচারীরা। অনেককে শালতলা-শহীদ মিনার এড়িয়ে অন্য সড়ক ব্যবহার করেন।

গেল ১৬ আগস্ট থেকে ইন্টার্ণশিপ বহালসহ চার দফা দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জণ করে আন্দোলনে নামে দেশের ১৭টি সরকারি মেডিকেল এ্যাসিস্ট্যান্ট স্কুল (ম্যাটস) শিক্ষার্থীরা। ২৮ আগস্ট সকালে আন্দোলনে একাত্বতা প্রকাশ করে কর্মবিরতি শুরু করেন বাগেরহাট ২৫০ শয্যা জেলা হাসপাতালে কর্মরত ১৫০ জন ডিপ্লোমা ইন্টার্ণ চিকিৎসক। সরকারি ম্যাটস শিক্ষার্থীদের সাথে একন দেশের ১০০টি বেসরকারি ম্যাটস শিক্ষার্থীরাও আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন। দাবি মানার ঘোষনা না দেওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

ম্যাটস শিক্ষার্থীদের দাবীগুলো হচ্ছে, অনতিবিলম্বে ইন্টার্নশিপ বহাল রেখে কোর্স কারিকুলাম সংশোধন চাই। এ্যালাইড হেলথ বোর্ড বাতিল করে অবিলম্বে “মেডিকেল এডুকেশন বোর্ড অব বাংলাদেশ” নামে স্বতন্ত্র বোর্ড গঠন করা। কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও অনতিবিলম্বে নিয়োগ প্রদান। বঙ্গবন্ধুর পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা অনুযায়ী উচ্চ শিক্ষার সুযোগ প্রদান।

  • শেয়ার করুন